সেকশন

রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
Independent Television
ad
ad
 

নায়ক ফারুককে কতটা জানেন

১৫ মে পৃথিবীর মায়া ছিন্ন করে পরপারে চলে যান বীর মুক্তিযোদ্ধা, কিংবদন্তি অভিনেতা ও সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান ফারুক। চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে। জীবদ্দশায় ফারুককে ঘিরে ছিল নানা আগ্রহ-আলোচনা। এখনও তাই। নায়কের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে তুলে ধরা হলো তাঁর জীবনের কিছু জানা-অজানা বিষয়—

আপডেট : ১৫ মে ২০২৪, ০২:৫৩ পিএম

প্রারম্ভিক জীবন
১৯৪৮ সালের ১৮ আগস্ট ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন ফারুক। তাঁর বাবা আজগার হোসেন পাঠান। এ নায়কের শৈশব-কৈশোর ও যৌবনকাল কেটেছে পুরান ঢাকায়। পাঁচ বোন ও দুই ভাইয়ের মধ্যে তিনি সবার ছোট।

মামলা থেকে রেহাই পেতে সিদ্ধান্ত নেন অভিনয়ে যোগ দেবেন ফারুক। ছবি: সংগৃহীত

জীবন বাঁচাতে গিয়ে অভিনয়ে
৬৯’র গণ-অভ্যুত্থানের পর ৩৭টি মামলা হয় ফারুকের বিরুদ্ধে। এক পর্যায়ে ফারুক শুনতে পান তাঁকে মেরে ফেলা হবে। মামলা থেকে রেহাই পেতে ও বেঁচে থাকার জন্য সিদ্ধান্ত নেন যে তিনি অভিনয়ে যোগ দেবেন। তাঁর ধারণা ছিল অভিনয় করলে মানুষ চিনবে জানবে, এতে জনপ্রিয়তা বাড়বে। যার ফলে তাঁর বিরুদ্ধে কিছু করতে গেলে সেটা সহজেই করা যাবে না। সে থেকেই তাঁর অভিনয়ে আসা। 

অভিনয় জীবন 
১৯৭১ সালে এইচ আকবর পরিচালিত ‘জলছবি’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক। সিনেমায় অভিনয় করতে গিয়ে পড়েন আরেক বিপাকে। এ ছবির নায়িকা কবরীকে কেউ জানায়, ফারুক একজন মাস্তান। ভালো ছেলে না। সে জন্য তাঁর সঙ্গে অভিনয় করতে রাজি ছিলেন না কবরী। 

সুজনসখী সিনেমায় কবরী ও ফারুক। ছবি: সংগৃহীত

১৯৭৩ সালে খান আতাউর রহমান পরিচালিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’, ১৯৭৪ সালে নারায়ণ ঘোষ মিতা পরিচালিত ‘আলোর মিছিল’ দুটি মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্রে পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেন মিয়াভাই। এরপর ১৯৭৫ সালে গ্রামীণ পটভূমিতে নির্মিত ‘সুজন সখী’ ও ‘লাঠিয়াল’ দুটি ব্যবসাসফল ও আলোচিত চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন এবং সে বছর ‘লাঠিয়াল’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য সেরা পার্শ্ব চরিত্রে অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। এরপর বহুবার পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এ ছাড়া চলচ্চিত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬-তে তাঁকে আজীবন সন্মাননা দেওয়া হয়।

রাজনীতিক ও ব্যবসায়িক জীবন
স্কুলজীবন থেকেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হন নায়ক ফারুক। এরপর ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিতব্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা-১৭ সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করেন এবং সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। অভিনেতা ও রাজনীতিবিদের পাশাপাশি ফারুক একজন ব্যবসায়ী। 

লাঠিয়াল সিনেমার দৃশ্যে ফারুক। ছবি: সংগৃহীত

ব্যক্তিজীবনের ফারুক
ফারজানা পাঠানকে ভালোবেসে বিয়ে করেন চিত্রনায়ক ফারুক। তাঁদের সংসারে দুই সন্তান রয়েছে। কন্যা ফারিহা তাবাসসুম পাঠান ও পুত্র রওশন হোসেন পাঠান শরৎ। মৃত্যুর আগমূর্হত পর্যন্ত পরিবারের মানুষের সান্নিধ্য পেয়েছেন এই খ্যাতিমান অভিনেতা। সন্তান ও স্ত্রী সবসময়ই তাঁকে আগলে রাখার চেষ্টা করেছেন। অন্যদিকে, অনুজ ও অগ্রজ শিল্পীদের পরম ভালোবাসাতে চিরবিদায় নিয়েছিলেন এই কীর্তিমান।

‘আউটসাইডার’ থেকে নিজেকে বলিউডের কুইন হিসেবে প্রমাণ করেছেন কঙ্গনা। অভিনয় ও বিতর্কে সিনে দুনিয়া কাঁপানের পর প্রথমবার ভোটের ময়দানে নেমেছেন তিনি। ভারতের হিমাচল প্রদেশের মাণ্ডি লোকসভা কেন্দ্র থেকে ২৪-এর...
ইতিমধ্যে বড় পর্দায় বড় কাজে পাওয়া গেছে অভিনেত্রী সাবিলা নূরকে। বাংলাদেশ-ভারতের পৃষ্ঠপোষকতায় তৈরি হয়েছিল ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’। এতে শেখ রেহানার ভূমিকায় অভিনয় করেন সাবিলা নূর।  এবার জানালেন,...
এবারের কান চলচ্চিত্র উৎসবে সবচেয়ে বেশিক্ষণ অভ্যর্থনা পেল গায়িকা-অভিনেত্রী সেলেনা গোমেজের মিউজিক্যাল ফিল্ম ‘এমিলিয়া পেরেজ’। দর্শকরা টানা ৯ মিনিট মুহুর্মুহু করতালিতে সম্মান জানিয়েছে। এখন পর্যন্ত...
বিশ্বজুড়ে মানবতার বার্তা ছড়িয়ে নজির গড়েছেন মাদার তেরেসা। শান্তিতে পেয়েছেন নোবেল পুরস্কার। ভূষিত হয়েছেন ভারতরত্ন সম্মানেও। ২০১৬ সালে ভ্যাটিকান সিটির পোপ ফ্রান্সিস তাঁকে ‌‘সন্ত’ হিসেবে ঘোষণা করেছেন।...
কর ব্যবস্থা ডিজিটালাইজ হলে ২০৩০ সাল নাগাদ রাজস্ব আয়ের পরিমাণ ১৬৭ বিলিয়ন ডলার বা প্রায় ২০ লাখ টাকায় দাঁড়াবে বলে মনে করছে গবেষণা সংস্থা সিপিডি। বিকেলে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংলাপে এমন তথ্য তুলে...
হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নে আমু চা বাগানে পুলপারে বজ্রপাতে সুকেশ কালিন্দী (৪০) নামে এক চা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। সুকেশ আমু চা বাগানের রাজ বিহারির ছেলে।
লোডিং...

এলাকার খবর

 
By clicking ”Accept”, you agree to the storing of cookies on your device to enhance site navigation, analyze site usage, and improve marketing.